তাশরিক-ই-হাবিব

ড.তাশরিক-ই-হাবিব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক। তিনি ইতঃপূর্বে ময়মনসিংহের (ত্রিশাল) জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ‘বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছোটগল্পে প্রান্তজনের জীবনচিত্র' শীর্ষক অভিসন্দর্ভের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১২ সালে এমফিল ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধীনে বাংলাদেশের উপন্যাসে লোকজ উপাদানের ব্যবহার' শীর্ষক গবেষণাকর্মের জন্য পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন। মৌলিক ও ভিন্নধর্মী গবেষণা হিসেবে তার এ অভিসন্দর্ভ (থিসিস) বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি সম্মানজনক “রিসার্চ গ্র্যান্ড' পেয়েছে। তার এমফিল অভিসন্দর্ভ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়েছে। উল্লেখ্য, এটিই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রথম এমফিল অভিসন্দর্ভ। মেধাবী গবেষক ও প্রাবন্ধিক হিসেবে তার বিভিন্ন প্রবন্ধ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহিত্য পত্রিকা', 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পত্রিকা', কলা অনুষদ পত্রিকা ও ‘প্রাচ্যবিদ্যা পত্রিকা, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষা-সাহিত্যপত্র', রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহিত্যিকী', বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (রংপুর) ‘বাংলা গবেষণা সংসদ', 'বাংলা একাডেমি পত্রিকা’ ও ‘বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে । তিনি বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) ও বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির সাতটি গবেষণা গ্রন্থ পুনঃসম্পাদনাও করেছেন। তিনি বর্তমানে ‘ইউজিসি পোস্ট-ডক্টোরাল ফেলোশিপ-২০১৮'-এর মনোনীত ফেলো হিসেবে কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীরের কথাশিল্প নিয়ে গবেষণা করছেন। বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক প্রথম আলো', 'সমকাল', 'কালের কণ্ঠ', 'যুগান্তর', 'ইত্তেফাক', ‘জনকণ্ঠ', ‘ভোরের কাগজ', ‘বণিকবার্তা' প্রভৃতির সাহিত্য-সাময়িকীতে এবং সাহিত্য-শিল্পবিষয়ক মাসিক পত্রিকা 'কালি ও কলম', 'শব্দঘর', 'যায় যায় দিন’-এর সহযোগী ‘সাপ্তাহিক প্রতিচিত্র'-তে তিনি নিয়মিত লিখেছেন। তাঁর লেখা গল্প, উপন্যাস ও প্রবন্ধ বিভিন্ন লিটল ম্যাগাজিন অন্তর্দেশ’,‘বয়ান', 'চিহ্ন', 'অনুপ্রাণন' প্রভৃতিতে প্রকাশিত হয়েছে। তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থসমূহ- গল্পকার শহীদুল জহির (২০১৫/রেফারেন্স গ্রন্থ), নজরুলের যুগবাণী ও অন্যান্য (২০১৬/রেফারেন্স গ্রন্থ), গল্পকথন (২০১৭/রেফারেন্স গ্রন্থ), গদ্যশিল্প বিষয়ক (২০১৭/রেফারেন্স গ্রন্থ), ভরদুপুরে ও অন্যান্য গল্প (২০১৫/গল্প), দম্পতিকথা (২০১৬/গল্প), বিকল পাখির গান (২০১৭/গল্প), পান্নাবিবি (২০১৭/উপন্যাস), বিভূতিভূষণ। বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছোটগল্পে প্রান্তজনের জীবনচিত্র (২০১৮/রেফারেন্স গ্রন্থ/ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রকাশিত এমফিল গবেষণা অভিসন্দর্ভের গ্রন্থরূপ), নাইয়র (২০১৯/উপন্যাস), বিশ মিনিট (২০১৯/উপন্যাস)

তাশরিক-ই-হাবিব

ড.তাশরিক-ই-হাবিব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক। তিনি ইতঃপূর্বে ময়মনসিংহের (ত্রিশাল) জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ‘বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছোটগল্পে প্রান্তজনের জীবনচিত্র’ শীর্ষক অভিসন্দর্ভের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১২ সালে এমফিল ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধীনে বাংলাদেশের উপন্যাসে লোকজ উপাদানের ব্যবহার’ শীর্ষক গবেষণাকর্মের জন্য পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন। মৌলিক ও ভিন্নধর্মী গবেষণা হিসেবে তার এ অভিসন্দর্ভ (থিসিস) বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি সম্মানজনক “রিসার্চ গ্র্যান্ড’ পেয়েছে। তার এমফিল অভিসন্দর্ভ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়েছে। উল্লেখ্য, এটিই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রথম এমফিল অভিসন্দর্ভ। মেধাবী গবেষক ও প্রাবন্ধিক হিসেবে তার বিভিন্ন প্রবন্ধ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহিত্য পত্রিকা’, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পত্রিকা’, কলা অনুষদ পত্রিকা ও ‘প্রাচ্যবিদ্যা পত্রিকা, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষা-সাহিত্যপত্র’, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাহিত্যিকী’, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (রংপুর) ‘বাংলা গবেষণা সংসদ’, ‘বাংলা একাডেমি পত্রিকা’ ও ‘বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে । তিনি বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) ও বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির সাতটি গবেষণা গ্রন্থ পুনঃসম্পাদনাও করেছেন। তিনি বর্তমানে ‘ইউজিসি পোস্ট-ডক্টোরাল ফেলোশিপ-২০১৮’-এর মনোনীত ফেলো হিসেবে কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীরের কথাশিল্প নিয়ে গবেষণা করছেন। বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক প্রথম আলো’, ‘সমকাল’, ‘কালের কণ্ঠ’, ‘যুগান্তর’, ‘ইত্তেফাক’, ‘জনকণ্ঠ’, ‘ভোরের কাগজ’, ‘বণিকবার্তা’ প্রভৃতির সাহিত্য-সাময়িকীতে এবং সাহিত্য-শিল্পবিষয়ক মাসিক পত্রিকা ‘কালি ও কলম’, ‘শব্দঘর’, ‘যায় যায় দিন’-এর সহযোগী ‘সাপ্তাহিক প্রতিচিত্র’-তে তিনি নিয়মিত লিখেছেন। তাঁর লেখা গল্প, উপন্যাস ও প্রবন্ধ বিভিন্ন লিটল ম্যাগাজিন অন্তর্দেশ’,‘বয়ান’, ‘চিহ্ন’, ‘অনুপ্রাণন’ প্রভৃতিতে প্রকাশিত হয়েছে। তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থসমূহ- গল্পকার শহীদুল জহির (২০১৫/রেফারেন্স গ্রন্থ), নজরুলের যুগবাণী ও অন্যান্য (২০১৬/রেফারেন্স গ্রন্থ), গল্পকথন (২০১৭/রেফারেন্স গ্রন্থ), গদ্যশিল্প বিষয়ক (২০১৭/রেফারেন্স গ্রন্থ), ভরদুপুরে ও অন্যান্য গল্প (২০১৫/গল্প), দম্পতিকথা (২০১৬/গল্প), বিকল পাখির গান (২০১৭/গল্প), পান্নাবিবি (২০১৭/উপন্যাস), বিভূতিভূষণ। বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছোটগল্পে প্রান্তজনের জীবনচিত্র (২০১৮/রেফারেন্স গ্রন্থ/ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রকাশিত এমফিল গবেষণা অভিসন্দর্ভের গ্রন্থরূপ), নাইয়র (২০১৯/উপন্যাস), বিশ মিনিট (২০১৯/উপন্যাস)

Showing all 2 Books