ইদানীং বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে

৳ 400.00

সাংবিধানিকভাবে নির্বাচিত বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে নিহত হওয়ার পর মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশে সম্পূর্ণ বিপরীত ধারার মতানুসারীদের আগমন ঘটে। এরা পাকিস্তানি ধারার অনুসারী ছিল। সাবেক পূর্ব পাকিস্তানের ধর্মাশ্রয়ী দল জামায়াতে ইসলামী ও রাজনৈতিক দল মুসলিম লীগের সমর্থকেরাই মুখ্যত ও প্রধানত মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিল। শুধু তাই-ই নয়, এরা নিজেদের ভারতবিরোধী ও পাকিস্তানপ্রেমী হিসেবে এখনও গণ্য করে। তাই এরা মুক্তিযুদ্ধের পরাজয়ের চিরস্থায়ী গ্লানি বিস্মৃত হতে পারেনি। পাকিস্তান ও অন্য বিদেশি প্রভুদের মন জুগিয়ে তারা বাংলাদেশের অস্তিত্ব বিনাশে নিরন্তর নিয়োজিত রয়েছে। এদের অপতৎপরতা ১৯৭৫ সালের পর থেকে অতি মাত্রায় বৃদ্ধি পায়। সাধারণ জনগণ এদের প্রত্যাখ্যান করতে সুযোগ পায় ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর। নির্বাচনে মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের রাজনৈতিক দলগুলোর মহাজোট জয়লাভ করায় অপশক্তির বিরুদ্ধে সমুচিত জবাব জনগণ দিয়েছে।ইদানীং বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে’ নামক এই গ্রন্থে ৫২টি নিবন্ধ অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। এগুলো দৈনিক সংবাদপত্রগুলোর উপসম্পাদকীয় পৃষ্ঠায় এবং সাপ্তাহিকে গত ২০০৬ থেকে ২০১০ সালের মার্চ পর্যন্ত প্রকাশিত কলাম ও নিবন্ধ থেকে বাছাইকৃত। লেখাগুলোর অধিকাংশই সমসাময়িক প্রেক্ষাপট আশ্রিত। বিশেষ সময়ের রাজনীতি, অর্থনীতি ও সমাজের বৈশিষ্ট্য সামান্য আঙ্গিকে হলেও এসব লেখায় রয়েছে। এসব লেখায় বিধৃত তথ্য-উপাত্ত হয়তো কোনো সময় ইতিহাসপ্রিয় মানুষের কাছে গ্রাহ্য হবে, এমন বিশ্বাস নিয়ে গ্রন্থটি প্রকাশ করা হলো।