এ শতকে আমাদের জীবনধারার রূপরেখা

View cart “মানবতা ও গণমুক্তি” has been added to your cart.

৳ 240.00

সংস্কৃতি ও জীবনের অন্যান্য চাহিদার মতো নিত্য অনুশীলনে ও বর্জনে-অর্জনে পরিচর্যার অপেক্ষা রাখে। উপযোগরিক্ত হলে বর্জন এবং নতুন চাহিদা পূরণের জন্য নতুন কিছু আবিষ্কার-উদ্ভাবন সৃষ্টি বা গ্রহণ-বরণ করে সমকালীনতা বজায় রাখতে হয়। তরু-লতার নবনব কিশলয়ের মতো মনীষানম্পন্ন ব্যক্তির মনে মননে নিত্য নতুন নতুন চেতনার চিন্তার উন্মেষ ও বিকাশ এবং বৃক্ষের পুরোনো পাতার মতো উপযোগরিক্ত বিশ্বাস-সংস্কার-ধারণা আচার আচরণের বর্জন প্রবণতা আর কল্যাণকর নতুন নতুন নীতিনিয়মের ও আচারের অর্জনই হচ্ছে সংস্কৃতির প্রবহমানগার ও প্রগতি প্রাগ্রসতার লক্ষণ।

আজকাল সংস্কৃতিকে রাজনীতিক মত-পথ আদর্শ সম্পৃক্ত বলে স্বীকার করা হয়। কাজেই রাজনীতিক অঙ্গনে রাজনীতিক কর্মসূচীর প্রত্যক্ষ বা সহযোগী কিংবা মনে-মর্মে প্রেরণা-প্রবর্তনার উৎস হিসেবে সংস্কৃতিটাকে দলীয় প্রয়োজনে আবশ্যিক ও জরুরী বলে মনে করা হয়। কোনো বিশেষ আদর্শের অনুসরণে সমাজ পরিবর্তন বা সমাজকল্যাণ করার রাজনীতি অনুগত জনমত গড়ার, তাদের মনে প্রেরণা-প্রণোদনা ও প্রবর্তনা দানের লক্ষ্যে সুনির্বাচিত বিষয়ে, বক্তব্যে ও শিল্পে-সাহিত্যে সভা-সেমিনারে সংস্কৃতি চর্চার প্রয়োজন ও চিন্তাশীল ব্যক্তিউ স্বীকার করেন। ফলে সক্রিয় রাজনীতিক চিন্তাশীল ব্যক্তিই স্বীকার করেন। ফলে সক্রিয় রাজনীতিক কর্ম ও তার অনুগত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানাদি একটা অপরটার পরিপূরক ও পরিবর্ধকরুপে বিবেচিত হচ্ছে। পরিবেশ অনুকূল করার জন্যে, জনসমর্থন আদায়ের জন্যে, জনগণকে প্রবুদ্ধ ও উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে সংস্কৃতিচর্চার প্রয়োজন অবশ্য স্বীকার্য; এ শতকে আমাদের জীবনধারা রুপরেখা কীরুপ; এ শতকে আমাদের জীবনধারার রুপরেখা কীরুপ হওয়া আমাদের জীবনধারার রুপরেখা কীরুপ হওয়া উচিত তৎসম্পর্কে বিশ্লষণাত্নক আলোচনা বিধৃত হয়েছে।

বাংলাদেশের মুক্তচিন্তার অনন্য ব্যক্তিত্ব এবং মধ্যযুগের সাহিত্য ও ইতিহাসের বিদগ্ধ পণ্ডিত ড. আহমদ শরীফ- এর বহুল আলোচিত বই।