কালোচিত কিছু বিবেচ্য বিষয়

৳ 80.00

আমরা স্বাধীন হলেও আমাদের জাতীয় স্তরে আত্মসমালোচনার সততাটা বজায় থাকে। আমরা স্বাধীন হলেও আমাদের সরকার ছিল অধিকাংশ সময়ে জঙ্গি সেনানায়কের শাসনের এবং তারই নায়কত্বে তথাকথিত এক ভোটতান্ত্রিক নিয়ন্ত্রিত গণতন্ত্রী। কাজেই এই রকম বিদেশি মুৎসুদ্দির এবং লুম্পেন বুর্জোয়ার গণতান্ত্রিক শাসনে নিঃস্ব, নিরন্ন, দুস্থ দরিদ্র গণমানবের ও আমজনতার আর্থ-সামাজিক নৈতিক কোন উন্নতি হতে পারে না। কেবল একটা ধূর্ত-ধনিক-বণিক শহুরে শিক্ষিত অব. আমলা, অবসেনানী ও ধূর্ত রাজনীতির ব্যবসায়ীরাই নতুন শ্রেণি রূপে আবির্ভূত হয়ে স্ব স্বার্থেই শাসন, শোষণ ও পীড়ন চালায় জনগণের নামে, শাসনের ও সেবার নামে, নিজেরা ভোগ করে খ্যাতি ক্ষমতা মান-যশ, দর্প-দাপট, প্রভাব প্রতিপত্তি বিদ্যা-বিত্ত-বেসাত অর্জন করে তারাই হয় ধন্য। রাষ্ট্র ক্ষমতা তাদেরই মধ্যে আবর্তিত হয়। অন্যেরা প্রজন্ম ক্রমেই থাকে শাসিত ও শোষিত। যেমন ১০ কোটি মানুষই রয়েছে দারিদ্য সীমানার নিচে। কয়েক হাজার ধনিক-বণিক রয়েছে অর্থ-বিত্ত-বেসাত ও প্রশাসন নিয়ন্ত্রক হিসেবে জনগণের ঘাড়ে বসে। সিন্দাবাদের ভূতের মতো। জনগণের ভাগ্যোন্নয়নের অবিকল্প পন্থা হচ্ছে সমাজতন্ত্র।