তুমি সেই প্রিয় মুখ

৳ 400.00

এক আশ্রিতের ভালোবাসা খুঁজে পাওয়ার অনন্য কাহিনি। বালক বয়সে বাবাকে হারিয়ে আমান আশ্রয় পায় পিতৃবন্ধু জাহিদের গৃহে, যার উত্থানে তার বাবার ভূমিকাই ছিল বেশি। জাহিদের স্নেহ আর তার কন্যা জিনিয়ার কৌতুহলএ দুয়ের বিন্যাস সমান্তরালে রেখে সে বেড়ে উঠতে লাগল। কৌতুহল ক্রমেই ভালোলাগা হলো, এক সময় তা ভালোবাসায় রূপ নিয়ে আমানের অন্তরে কড়া নাড়তে লাগল। আশ্রিতের প্রখর নীতিবোধ আমানকে সাড়া দিতে বাধা দিল, সে আত্মসংবরণ করল। কিন্তু কোনো অব্যক্ত উপলব্ধি তার হৃদয়ের কোণে লুকিয়ে ছিল, তাই বান্ধবী সাবিহাও তাকে তার দিকে ফেরাতে পারলনা। সেটা বাধা হয়ে দুজনার সামনে এসে দাঁড়াত। ক্রমাগত এই আত্মনিয়ন্ত্রণ তাকে হীনম্মন্যতায় ভোগায়, নিজেকে তার স্বার্থপর মনে হয়। সে এক প্রশ্নের মুখে দাঁড়ায়। প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে অনুভূতিটাকে বের করে আনতে চায় আমান। তার ভেতরের বাধাটা দুর্বল হয়ে পড়ে যখন সে দেখে তার সেই অনুভূতি জিনিয়ার সরব সান্নিধ্যে সবুজ হয়ে উঠেছে। দুজনার মিলনে সেই দেওয়াল অপসৃত করতে কিছুটা বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল জাহিদের স্ত্রী। কিন্তু জিনিয়ার আহ্বান আর তাতে আমানের সাড়া সে অর্গল ভেঙে দুজনার ভালোবাসা মুখোমুখি নিয়ে আসে। আবহমান এক প্রেমের কাহিনিপূর্ণ সমাপ্তি এইতুমি সেই প্রিয় মুখ’।