নদীজীবন চরজীবন

৳ 650.00

‘নদীজীবন চরজীবন’-এক মলাটের ভেতর তিন উপন্যাস।

এখানে একদিন জলসীমা ছিল। জলের ওপর জলের ঢেউয়ের আছাড়িবিছাড়ি নাচন ছিল। অনেক দূর থেকে ঢেউগুলো ভেসে আসত, কখনো ভেঙে, কখনো কাতার বেঁধে। সমুদ্র উপকূলের মানুষের নিরস্তর সংগ্রাম আর জীবনশৈলীর অপূর্ব আখ্যান ‘আবর্ত’।

..একটা নদী, ভরা যৌবনে দুকূল ভাসিয়ে ছুটেছে একদিন। এখন রুখাশুখা, বুকে তার বালুচর।  দুই পারে দুই দেশ-আছে এক আকাশতলে। বদলে গেছে মানুষের জীবনচিত্র। নদী শুকিয়েছে, মাটির ভ্রূণ মরে গেছে। দুই পারের মানুষ হয়ে গেছে লাফাঙ্গা, দুই নম্বরি। সেই নদীর নাম পদ্মা। উপন্যাসের নাম ‘পদ্মা উপাখ্যান’।

সমুদ্রের মোহনায় বিশাল বিচন বনভূমি। পাখ-পাখালি, উভচর সরীসৃপ, বনপোকা, ঝিঁঝি আর জোনাকির অভয়ারণ্য। চাঁদের আলো ছড়িয়ে পড়ে, অদ্ভুত এক স্বপ্নজাল বিস্তার করে রাতের দিগন্তে। নিবিড় বন রক্ষা করে মানুষের জীবন, পত্তন করে ভূমি। সেই বন উজাড় করে মানুষ। চেহারায় নষ্ট রাজনীতিক, শিল্পপতি, ব্যবসায়ী। তাদের লক্ষ্য ভূমি-জমি। তারা সঙ্গী করে নদী শিকস্তি। তারপর হাজার হাজার একক ভূমি দখলের খেলা শুরু হয়। সেই খেলা যেন আগুনে পুড়তে থাকা দিন, যেন একাত্তর ফিরে আসে ‘রক্তভেজা অববাহিকা’য়।