View cart “শাস্ত্র,সমাজ ও নারীমুক্তি” has been added to your cart.

নারীর মানবাধিকার ও ক্ষমতায়নের পথে

৳ 350.00

নারীর অগ্রহতিই সমাজের অগ্রগতি। সারা বিশ্বে, কি পূর্বে কি পশ্চিমে, সমাজ বিকাশের ধারায় নারীর মানবাধিকার ও ক্ষমতায়নের সংগ্রাম একই স্রোতে বহমান।পবিবার থেকে শুরু করে সমাজ ও রাষ্ট্রের সকল ক্ষেত্রে সকল পর্যায়ে নারী-পুরুষের সমান অধিকার অর্জনের তথা সমান অংশগ্রহনের সুযোগ অর্জনের তথা সমান অংশগ্রহণের সুযোগ অর্জনের জন্য দেশীয় ও আন্তজাতিকভাবে চলছে ধারাবাহিক সংগ্রাম। এরই ধারাবাহিকতায় বর্তমান সময়ের সক্রিয়, অভিজ্ঞ ও বলিষ্ঠ নেত্রী আয়শা খানমের প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতা, চিন্তা-চেতনা ও বিশ্লেষণের সারাৎসার এই গ্রন্থের নিবন্ধগুলোতে প্রতিফলিত হয়েছে। দেশের নারীআন্দোলনের অগ্রণী সংগঠন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি হিসেবে নারীর মানবাধিকার ও ক্ষমতায়নের আন্দোলনে সংশ্লিষ্ট জাতীয়-আঞ্চলিক-আন্তর্জাতিক সকল পর্যায়ের নানান কর্মসূচিতে তাঁর অংশগ্রহণের অভিজ্ঞতা ও সাম্প্রতিক বৈশ্বিক ধারণাপ্রবাহ বিধৃত আছে রচনাগুলোতে। বিশ্বে মানবাধিকার ও ক্ষমতায়নের পথে পিতৃতান্ত্রিক সংস্কৃতির বাধা, সভ্যতার বিকাশে নারী তথা কৃষক নারীদের অবদান, বৈশ্বিক নারীঅধিকার আন্দোলনের নেত্রী-কর্মী-চিন্তাবিদ ও আমাদের রোকেয়া-সুফিয়া কামাল-হেনা দাস প্রমুখের অবদান ও ভাবনা- চিন্তনকে বর্তমান ও ভবিষ্যতের প্রেক্ষিতে মূল্যায়ন করা হয়েছে। নারীর মানবাধিকার ও ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠায় জাতিসংঘের উদ্যোগসমূহ, যেমন-নারীর প্রতি সকল প্রকার বৈষম্য বিলোপ সনদ সিডও (CEDAW), নারীর মর্যাদা বিষয়ক কমিশন (CSW) প্রভৃতির প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের নারী আন্দোলন আলোচিত হয়েছে। নারী নির্যাতন তথা নারীর বিরুদ্ধে চলমান ধারাবাহিক সহিংসতা প্রতিরোধে নারীআন্দোরন, নাগরিকসমাজ, রাষ্ট্রীয় আইন ও বিচার ব্যবস্থা, আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী, গণমাধ্যম এবং সর্বোপরি সমাজের ভূমিকার বিষয় বর্ণিত হয়েছে। পাশাপাশি একুশ শতকের নারী- পুরুষ সমতা, গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও শান্তির আন্দোলনে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ তথা বাংলাদেশের নারী আন্দোলনের সম্পৃক্তি ও ভূমিকার বিস্তৃত আলোচনা আছে গ্রন্থভুক্ত প্রবন্ধগুলোতে।