মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী

View cart “স্বাধীনতার স্থপতি” has been added to your cart.

৳ 1,300.00

উপমহাদেশের ব্রিটিশ ঔপনিবেশিকতাবিরোধী শীর্ষ স্বাধীনতা সংগ্রামীদের মধ্যে মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর কর্মজীবন দীর্ঘতম: প্রায় ৭৫ বছর। ১৯১৭ থেকে ১৯৭৬-এ মৃত্যু পর্যন্ত প্রায় ৬০ বছর তিনি জাতীয়তাবাদী রাজনীতির মূল স্রোতের সঙ্গে ছিলেন। তবে অন্য জাতীয়তাবাদী নেতাদের সঙ্গে তাঁর পার্থক্য এখানে যে, তিনি অবিচ্ছিন্নভাবে দরিদ্র কৃষক ও গ্রামের খেটে-খাওয়া মানুষের অধিকার রক্ষার জন্য জমিদার-মহাজন প্রভৃতি শোষকশ্রেণির বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। শ্রেণিগত দিক থেকে তিনি ছিলেন গ্রামীণ মধ্যবিত্ত। শৈশবেই বাবা-মা, ভাই-বোনদের হারিয়ে, বিশেষ করে সম্পত্তি বেহাত হয়ে যাওয়ায়, তিনি ছন্নছাড়া অবস্থায় এক অনিশ্চিত জীবনের পথে চলে যান; কিন্তু অল্পদিনের মধ্যেই যৌবনের শুরুতে, তিনি খুঁজে পান পথ: দেশের স্বাধীনতা ও শোষিত নিপীড়িত মানুষের মুক্তির জন্য জীবন উৎসর্গ করবেন এবং আমৃত্যু তিনি তাই করে গেছেন।

ঔপনিবেশিক আমলে প্রধান কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন মওলানা ভাসানী।

পাকিস্তানের রাজনীতিতে তাঁর সময়ে তিনি ছিলেন সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা। যদিও সব সময়ই তিনি ছিলেন ক্ষমতার বাইরে। ১৯৩০-এর দশকের মাঝামাঝি থেকে তাঁর মৃত্যুর পূর্বপর্যন্ত দেশের এমন কোনো রাজনৈতিক আন্দোলন ছিল না যার নেতৃত্ব দেননি মওলানা ভাসানী। উপমহাদেশের এই মহান নেতার বৈচিত্র্যময় ও ঘটনাবহুল দীর্ঘ জীবনের নানা দিক এখানে উঠে এসেছে। একাগ্রতা, নিষ্ঠা, নিরপেক্ষতার গবেষণালব্ধ এই গ্রন্থটি ভাসানীর খ্যাতির মতোই উজ্জ্বল ও অনন্য। এই অসাধারণ মৌলিক রাজনৈতিক জীবনচরিত গ্রন্থ হিসেবে উৎকৃষ্ট উদাহরণ নির্মাণ করেছে।