শাস্ত্র,সমাজ ও নারীমুক্তি

View cart “সিমোন দ্য বোভোয়ার দ্বিতীয় লিঙ্গ” has been added to your cart.

৳ 270.00

নারীর বাস্তব অবস্থা ও অবস্থান সম্বন্ধে তাত্ত্বিক ঐতিহাসিক এবং পরম্পরাগত শাস্ত্রিক ও সামাজিক কারণগুলো বর্ণন, আলোচনা ও বিশ্লেষণ করবার চেষ্টা করা হয়েছে। শাস্ত্র, সমাজ ও নারীমুক্তি নিয়ে বিশ্লেষণাত্মক নিবন্ধ পাঠককে আন্দোলিত করবে।

মানুষ জন্মসূত্রেই পারিবারিক ও সামাজিক পরিবেশে প্রতিবেশে নানা শাস্ত্রিক ও দেশাচার লোকাচার-সম্পৃক্ত বিশ্বাস-সংস্কার, মন-মনন পূর্ণ ও পুষ্ট করে গেলে সে গ্রাহিকাশক্তি হারায়,জ্ঞান-যুক্তি-বুদ্ধি-বিবেচনা তখন তার মনে মস্তিষ্কে কোনো প্রভাব ফেলতে পারে না। সে শাস্ত্রিক সামাজিক-সাংস্কৃতিক আচারিক নীতি-নিয়মে, রীতি-রেওয়াজে প্রথা-পদ্ধতিতে অভ্যস্ত হয়ে বাঁধা পথে চলতে যেয়ে যেকোনো নতুনে কিংবা বিচ্যুতিতে অস্বস্তিবোধ করে। তবু কোনো মানুষই স্বকালের স্বজীবনের নতুন চাহিদাকে তথা প্রয়োজনকে এড়িয়ে চলতে পারে না। ফলে শাস্ত্রিক বিধি-নিষেধ মানুষ চিরকালই প্রজন্মে প্রজন্মে ভেঙ্গে চলেছে। নতুনের ছোঁয়া বাঁচিয়ে চলা সহজ নয়, ব্যক্তির অজ্ঞাতেই ব্যক্তিজীবনে, পারিবারিক জীবনে ও সামাজিক সাংস্কৃতিক জীবনে কেবল যে উদারতায় সহ্য করতে হয়, তা নয়, আসক্তির আকর্ষণ এবং অনুরাগও অনুভব করে। এজন্যেই শাস্ত্র কেবল বাহ্য খোলস হয়ে টিকে থাকে, অন্তরে মানুষ শাস্ত্রের বিধি-নিষেধ লঙ্ঘন করে আর ব্যবহারিক জীবনে বর্জন করে, করে অবহেলা, অস্বীকার। নারীর বাস্তব অবস্থা ও অবস্থান সম্বন্ধে তাত্ত্বিক ঐতিহাসিক এবং পরম্পরাগত শাস্ত্রিক ও সামাজিক কারণগুলো বর্ণন, আলোচনা ও বিশ্লেষণ করবার চেষ্টা করা হয়েছে। শাস্ত্র, সমাজ ও নারীমুক্তি নিয়ে বিশ্লেষণাত্মক নিবন্ধ পাঠককে আন্দোলিত করবে।